নাইট ও ছেলেটি

উৎসর্গ : ছোটছোট ছেলে  মেয়েরা, যাদের অনেক যুদ্ধ করার সাধ; অনেক লড়াই করার ইচ্ছে।

কুমড়োফালি চাঁদ উঠেছে মধ্যরাতে,
চিলেকোঠার গরাদ-জঙে কিংবা ছাতে
আলতো উষ্ণ হিপপকেটে আধখানি চাঁদ,
ছোট্ট ছেলের লুকিয়ে রাখার পুরনো সাধ।

চোখের কোলে হলদে রঙের নিয়ন আলো
আদর-ক্ষতে বুলিয়ে দিচ্ছে হাওয়ার ঝালর।
গরাদ ছোঁয়া রাত-বাতাসে ঘুম এসে যায়
ছোট্ট শিশুর, মেঘ-বেহালার ছড়ের মায়ায়।

কেবলই তার দু চোখ বেয়ে স্বপ্ন আসে,
ছোট্ট দু’পা ঠেকছে এসে ক্লান্ত ঘাসে।
শিশির ঘাসে লেজ দুলিয়ে তার পাশে ওই
দাঁড়িয়ে আছে বাচ্চা ঘোড়া, পাতানো সই।

খুব বেশি নয় সেখান থেকে অনতিদূর
ক্ষেতের ’পরে, ওই দেখা যায় আঁধারে চুর,
লম্বা, সোজা, উচিয়ে মাথা দাঁড়িয়ে থাকা,
অনেকগুলো ভূতের মত বাতাস-পাখা।

বাচ্চা ঘোড়া ডাকছে কিন্তু ছোট্ট ছেলের
ভয় ডর নেই, এগিয়ে যাচ্ছে বাতাস ঠেলে;
পরোয়া তো নেই, বীর সে পুরুষ,
জেদ ধরেছে, মারবে নইলে স্বেচ্ছা-কুরুশ।

রোদ ফুটেছে।বাতিরা নেই ভোরের বেলায়,
দিন এসেছে, শেষ হয়েছে স্বপ্ন খেলা।
চাপিয়ে দেওয়া বইয়ের পাহাড়, স্কুলের শাসন
আবার শুরু। সকাল-সকাল বেখাপ্পা মন।

বাড়ির নিচে দাঁড়িয়ে থাকুক স্কুলের গাড়ি।
যাবে না স্কুল, আঁকড়ে আছে মায়ের শাড়ি।
কিচ্ছু করার ছিল না তার,  যেতেই হ’ল।
আজকে বকা! মুখস্ত নেই নামতা ষোলোর।

মনভালোরা স্বপ্ন-স্মৃতি সাজিয়ে রাখে ঘুলঘুলিতে
মনকেমনের ইস্কুলে যায়, কল্প-যোদ্ধা ডন কিহোতে।

Advertisements

2 Comments Add yours

  1. dripoesyblog says:

    The poem is pretty well, but why have you kept Don Quixote’s photo as the cover? some irony or paradox?

    Liked by 1 person

    1. kothokkhyapa says:

      nothing of that short. just put it. no other thoughts

      Liked by 1 person

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s